মেনু নির্বাচন করুন

দর্শনীয় স্থান

ক্রমিক নাম কিভাবে যাওয়া যায় অবস্থান
বঙ্গবন্ধু সেতু

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা হতে ১১ কি.মি দক্ষিনে বাস যোগে যাওয়া যায়।

ইলিয়ট ব্রীজ

সিরাজগঞ্জ শহরের বাসস্ট্যান্ড হতে  ০.৫ (হাফ) কিলোমিটার দূরত্ব এসএস রোড দিয়ে মাত্র ১৫ মিনিট পায়ে হেটে  অথবা ১০ টাকা রিক্সা ভাড়া দিয়ে ব্রীজটি দেখার জন্য আসতে পারবেন।

সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাধ সিরাজগঞ্জ শহর থেকে ‍রিক্সা যোগে যাতায়াত করা যায়।
ইকো পার্ক

সিরাজগঞ্জ শহর হতে দক্ষিনে প্রায় ০৮ কি.মি বাসযোগে যেতে হবে । 

ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী যেকোনো বাসে বঙ্গবন্ধু-যমুনা সেতু পেরিয়েই ইকোপার্কের অবস্থান। আর উত্তরবঙ্গের যেকোনো জেলা থেকে এলে সিরাজগঞ্জ রোড পেরিয়ে কড্ডার মোড়ের পরেই এই ইকোপার্ক। ট্রেনে এলে যমুনা সেতু পশ্চিম স্টেশনে নামতে হবে। পুরো ইকোপার্ক ঘুরতে ২/৩ ঘন্টার বেশী সময় লাগার কথা না।

 

মুক্তির সোপান ১। রেল পথে ২। সড়ক পথে
সার্কিট হাউজ সড়ক পথে (গাড়ী, সিএনজি ও রিক্সা যোগে)
যাদব চক্রবর্তীর বাড়ী সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয় হতে প্রায় ১ কি. মি পূর্ব প্রান্তে যমুনা নদী সংলগ্ন যাদব চক্রবর্তীর বাড়িতে গাড়ী ও রিক্সা যোগে যাওয়া যায়।
সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজীর বাড়ী সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয় হতে প্রায় ৫০০ গজ উত্তর প্রান্তে প্রখ্যাত সাহিত্যিক সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজীর বাড়িতে গাড়ী ও রিক্সা যোগে যাওয়া যায়।
মজলুম জননেতা মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাষানীর বাড়ী সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয় হতে প্রায় ২ কি. মি. উত্তর পশ্চিম প্রান্তে মজলুম জননেতা মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাষানীর বাড়ীতে গাড়ী ও রিক্সা যোগে যাওয়া যায়।


Share with :

Facebook Twitter