মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

বঙ্গবন্ধু সেতু

বঙ্গবন্ধু যমুনা বহুমুখী সেতু বাংলাদেশও দক্ষিণ এশিয়ার দীর্ঘতম এবং বিশ্বের ১২ তম দীর্ঘসেতু। ১৯৯৮ সালের জুন মাসে এটি উদ্বোধন করা হয়। বাংলাদেশের ৩টি বড় নদীর মধ্যে সবচেয়ে বৃহত্তম এবং পানি নির্গমনের দিক থেকে বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম নদী যমুনার উপর এটি নির্মিত হয়েছে।  জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর নামানুসারে সেতুটির নামকরণ করা হয়।বংগবন্ধু সেতু বাংলাদেশের পূর্বাঞ্চলওউত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করে দেশের দুই অংশকেএকত্রিতকরেছে।এই সেতু নির্মাণের ফলে জনগণ বিভিন্নভাবে লাভবান হচ্ছে এবং এটি আন্তঃআঞ্চলিক ব্যবসা ও আর্থসামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ন অবদান রাখছে। সড়ক ও রেলপথে দ্রুত জাতীয় মালামাল পরিবহণ ছাড়াওএই সেতুবিদ্যুৎ, গ্যাস সঞ্চালনএবং টেলিযোগাযোগ সমন্বিত করার একঅপূর্বসুযোগ  করে  দিয়েছে  । সেতুটির  একপ্রান্তে টাংগাইল  জেলার  কালিহাতী উপজেলাও অপরপ্রান্তে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা। সেতুটির দৈর্ঘ্য ৪.৮০কিঃমিঃ এবং প্রস্থ১৮.৫মিঃ।

কিভাবে যাওয়া যায়:

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা হতে ১১ কি.মি দক্ষিনে বাস যোগে যাওয়া যায়।